বুধহাটায় আপত্তিকর অবস্থায় আতিকুল ও মমতা আটক!

আশাশুনি (সাতক্ষীরা) :
আশাশুনি উপজেলার বুধহাটায় দ্বিতীয় স্ত্রী স্বামীকে তালাক দেওয়ার পরও গোপনে একত্রিত হওয়ার অভিযোগে আটক করা হয়। পরে পুলিশে সোপর্ধ করলে উভয়কে থানায় হাজির হওয়ার শর্তে ছেড়ে গেলে তারা থানায় না গিয়ে গা ঢাকা দিয়েছে। বুধহাটা গ্রামের মালেক সরদারের পুত্র আতিকুল নিজের স্ত্রী থাকার পর একই গ্রামের ছায়েম হোসেনের কন্যা মমতার সাথে বিয়ে করে। বিয়ের পর শ^শুর বাড়িতে তারা স্বামী-স্ত্রী হিসাবে বসবাস করে আসছিল। পরবর্তীতে গত ১১ জুন মমতা তার স্বামী আতিকুলকে তালাক প্রদান করে। তালাক পত্র পাওয়ার পর আতিকুল তালাক দেওয়া স্ত্রীর কাছে ৫০ হাজার টাকা পাবে দাবী করলে উভয় পক্ষকে নিয়ে গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ শালিসী বৈঠকে বসলে টাকা পাওয়ার কথা মিথ্যা প্রমানিত হয়। তাদের ছাড়াছাড়ি চুড়ান্ত হয়ে যায়। বুধবার রাত্র ১০ টার দিকে আতিকুল গোপনে মমতার সাথে যোগাযোগ করে তার ঘরে গিয়ে উঠে। একপর্যায়ে মমতার পিতা জানতে পেরে ঘরে তালা আটকে দিলে স্থানীয় মনি, আহসান, হাফিজুল এবং পরবর্তীতে মেম্বার রেজওয়ান আলি, শ্রমিকলীগ সভাপতি হাতেম আলি, যুবলীগ নেতা এজদান আলি, সাদ্দাম হোসেনসহ অনেকে সেখানে উপস্থিত হয়ে বিষয়টি অবহিত হয়ে জানাশুনা করেন। রাত্র দেড় টার দিকে থানার দারোগা জাকির হোসেন ঘটনাস্থানে উপস্থিত হয়ে উভয় পক্ষকে বৃহস্পতিবার থানায় উপস্থিত হওয়ার নির্দেশ দিয়ে তাদের ছেড়ে যান। ইউপি সদস্য রেজওয়ান আলি জানান, তারা ছাড়া পেয়ে থানায় না গিয়ে আত্মগোপন করেছে। ####



« (পূর্ববর্তী সংবাদ ...)



সংযুক্তিমূলক সংবাদ ..

  • আশাশুনিতে আইন শৃংখলা রক্ষায় গ্রাম পুলিশের ভূমিকা শীর্ষক কোর্স উদ্বোধন
  • নলতা শরীফে পীর কেবলার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের উদ্বোধন
  • আশাশুনিতে পরিবার কল্যাণ সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে এ্যাডভোকেসি সভা
  • নলতা কেন্দ্রীয় আহ্ছানিয়া মিশনের কার্যকরী পরিষদের সভা অনুষ্ঠিত
  • আশাশুনিতে পুলিশী অভিযানে গ্রেফতার- ২
  • আনুলিয়ায় চেয়ারম্যান কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে ৭নং ওয়ার্ড চ্যাম্পিয়ান
  • বুধহাটায় ব্লুগোল্ডের অভিজ্ঞতা বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত
  • আশাশুনিতে ৪ আসামী গ্রেফতার
  • Leave a Reply