আশশুনির খবর


কাদাকাটিতে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে শিক্ষকের মৃত্যু

জি এম মুজিবুর রহমান, আশাশুনি :: আশাশুনি উপজেলার কাদাকাটিতে বিদ্যুতের তারে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক স্কুল শিক্ষকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। রবিবার দুপুরে পূর্ব কাদাকাটি গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পূর্ব কাদাকাটি গ্রামের মৃত হরিপদ মন্ডলের পুত্র পূর্ব কাদাকাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সত্যরঞ্জন মন্ডল (৪৫) ধান ক্ষেতে পানি সেচের কাজ করছিলেন। দুুপুর ১ টার দিকে শিক্ষক সত্যরঞ্জন অসতর্কতাবশতঃ বিদ্যুতের তারে স্পর্শ করলে বিদ্যুতায়িত হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। মৃতকালে তিনি স্ত্রী ও ১ পুত্র সন্তান রেখে গেছেন।

আশাশুনিতে পহেলা বৈশাখ বাংলা নববর্ষ পালন

পহেলা বৈশাখ বাংলা নববর্ষ-১৪২৬ উপলক্ষে আশাশুনিতে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। ১৪ এপ্রিল এ উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসন উৎসাহ উদ্দীপনা ও বাঙালি চেতনায় এসব কর্মসূচির আয়োজন করে।

কর্মসূচির মধ্যে ছিল সকাল ৭.৩০ টায় উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে মঙ্গল শোভাযাত্রা (র‌্যালী)। র‌্যালিটি বিভিন্ন সড়ক ও বাজার প্রদক্ষিণ শেষে পুনরায় পরিষদ চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। ৮.৩০ টায় গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী বাঙ্গালী খাবার পান্তা ভাত ও গ্রাম্য খাদ্য পরিবেশন, ৯.৩০ টায় আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করা হয়। উপজেলা পরিষদ চত্বরের মঞ্চে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে এলাকার শিল্পীসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিল্পীবৃন্দ অংশ নেন। এছাড়া হাড়িভাংগা ও লাঠিখেলা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) পাপিয়া আক্তার, পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) বিপ্লব কুমার দেবনাথ, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আঃ হান্নান, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ অরুন কুমার ব্যানার্জী, সিনিঃ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সেলিম সুলতান, প্রকৌশলী আক্তার হোসেন, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা আজিজুল হক, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বাকী বিল্লাহ, শিক্ষা অফিসার শামসুন্নাহার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মহিষাডাঙ্গায় জলমহালের দখল নিয়ে সংঘর্ষে আহত-৩

আশাশুনি উপজেলার কুল্যা ইউনিয়নের মহিষাডাঙ্গা ব্রীজের মুখে জলমহালের দখল নিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় ৩ জন আহত হয়েছে। রবিবার স্ন্ধ্যায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতদের সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মহিষাডাঙ্গা পূর্ব পাড়া মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির সভাপতি অলোক ঢালীর নামে বালুয়া নদী জলমহাল ইজারা নিয়ে মৎস্যজীবিরা ভোগ দখল করে থাকেন। ১৪২৫ সালের ৩০ চৈত্র ইজারার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। যথারীতি তারাসহ অন্যরা জলমহালের ইজারা পেতে সিডিউল জমা দিয়েছেন। ১লা বৈশাখ জলমহাল ইজারার মেয়াদ না থাকায় সাতক্ষীরা জেলা তাতীলীগ যুগ্ম আহবায়ক কাজী মারুফ ও তার লোকজন এবং মুড়োগাছা গ্রামের কামাল মোড়লের পুত্র হাবিবের নেতৃত্বে তার লোকজন ব্রীজের মুখে পৌছায়। তারা (মারুফ) বিষয়টি মিমাংসার চেষ্টাকালে প্রতিপক্ষ তাদের উপর আক্রমন করে। বেদম আক্রমনে এলাকায় ত্রাসের সৃষ্টি হয়। প্রতিপক্ষের আক্রমনে তাতীলীগের যুগ্ম আহবায়ক কাজী মারুফ, তাতীলীগ নেতা কাজী আঃ ফরহাদ, শেখ তারিকুল ইসলাম রক্তাক্ত জখম হন। রাতেই তাদেরকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

কাদাকাটি হাই স্কুলে ১০ প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ

জি এম মুজিবুর রহমান, আশাশুনি (সাতক্ষীরা) ঃ আশাশুনি উপজেলার কাদাকাটি আরার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ম্যানেজিং কমিটি গঠনের লক্ষ্যে অভিভাবক সদস্য পদে ১০ প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার সকালে স্কুল অফিস কক্ষে যাচাই বাচাই অনুষ্ঠিত হয়।

প্রিজাইডিং অফিসার ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বাকী বিল্লাহর প্রতিনিধি একাডেমীক সুপারভাইজার হাসানুজ্জামান উপস্থিত হয়ে নমিনেশনপত্র যাচাই বাছাই করেন। এসময় অভিভাবক সদস্য পদে প্রভাষক যামিনী কান্ত মন্ডল, বছির আহমেদ টিকু, হরেকৃষ্ণ মন্ডল, আছাফুর রহমান, আঃ আলিম, সিফাতুল্লাহ, আঃ সামাদ, জিয়াউর রহমান, নুর নাহার পারভিন ও রেক্সনা খাতুন এর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়।

আশাশুনিতে বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ শীর্ষক প্রতিযোগিতা

আশাশুনি উপজেলার ১৬৭টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ বিষয়ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা শিক্ষা অফিসের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ এবং এসডিজি কর্ণার স্থাপন নিশ্চিতকরণসহ প্রতিমাসে ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ বিষয়ক প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। ক্লাস্টারের সকল বিদ্যালয়ে নিবিড় পর্যবেক্ষণ এবং সকল বিদ্যালয়ে এ প্রতিযোগিতা নিশ্চিত করতে উপজেলায় কর্মরত ৬ জন সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার তদারকি করেন।

প্রতিযোগিতায় প্রত্যেক বিদ্যালয় হতে একজন করে বিজয়ী নির্বাচিত করা হয়। এ প্রতিযোগিতা ও এসডিজি কর্ণারের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বাংলাদেশ সম্পর্কে সমুহ জ্ঞানের অধিকারী হওয়ার সুযোগ পাবে।

বুধহাটায় নববর্ষ ক্রিকেট প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

আশাশুনি উপজেলার বুধহাটায় ১লা বৈশাখ বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে ক্রিকেট প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। বুধহাটা বিবিএম কলেজিয়েট স্কুল মাঠে এ খেলা অনুষ্ঠিত হয়।
বুধহাটা বাজার পাইপ ব্যবসায়ী সমিতির আয়োজনে খেলায় পাইপ ব্যবসায়ী ক্রিকেট একাদশ ও পাইপ মিস্ত্রী ক্রিকেট একাদশ মুখোমুখি হয়। পাইপ মিস্ত্রী একাদশ নির্ধারিত ১৫ ওভারে ১১৪ রান সংগ্রহ করে। জবাবে পাইপ ব্যবসায়ী দল ১০৪ রান করে অল আউট হয়ে যায়। খেলা পরিচালনা করেন জয়নাল আবেদীন ও শাহিন। সমিতির উপদেষ্টা হাসান আলি, সদস্য আমজাদ হোসেন, ওয়ার্ড আ’লীগ সেক্রেটারী আছাদুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত থেকে খেলা উপভোগ করেন।

চেচুয়া মাদরাসায় বৈশাখী অনুষ্ঠানে হট্টগোল ইটপাটকেল নিক্ষেপ

আশাশুনি উপজেলার আনুলিয়া ইউনিয়নের চেচুয়া মাদরাসায় বৈশাখী অনুষ্ঠান নিয়ে হট্টগোল, ইটপাটকেল নিক্ষেপ, ভাংচুর ও শিক্ষকদের অবরুদ্ধ করে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মাদরাসার ইবতেদায়ী শিক্ষক তৈয়েবুর রহমান জানান, রবিবার চেচুয়া বহুমুখী ফাজিল মাদরাসায় পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে মাইক ডেকোরেটরের অসাবধানতা বশতঃ হিন্দি গানের রেকর্ডিং বেঁজে উঠে। সঙ্গে সঙ্গে মাইক ডেকোরেটরের লোকজন গান বন্ধ করে দেয়। তখন স্থানীয় মেম্বর আব্দুল বারী সরদারের পুত্র নাশকতা মামলার আসামী ইনামুল হোসেনের নেতৃত্বে ২০/২৫ জন শিক্ষকদের উপর চড়াও হয়ে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে ও দরজা জানালা ভাংচুরের চেষ্টা চালায়। এক পর্যায়ে শিক্ষকরা মাদরাসার দুটি কক্ষে গিয়ে দরজা লাগিয়ে আত্মরক্ষার চেষ্টা করেন।

মেম্বর ইনামুল হোসেন জানান, হিন্দি গান বেঁজে ওঠায় এলাকার লোকজন ক্ষেপে ওঠে। তখন আমি মাদরাসায় যেয়ে ঘটনাটি মিমাংশা করে দেই। এই ঘটনায় অভিভাবকদের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। #

বুধহাটা কলেজিয়েট স্কুলে আবারও দু’ছাত্রকে বেত্রাঘাত

জি এম মুজিবুর রহমান :: আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা বিবিএম কলেজিয়েট স্কুলে বেতের ব্যবহার বন্ধ হচ্ছেনা। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে একের পর এক বেতের ব্যবহারে শিক্ষার্থী ও অভিভাবক মহলে ক্ষোভের সঞ্চার হচ্ছে।
সরকার কোন স্কুল, কলেজ, মাদরাসায় লাঠির ব্যবহার সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ করেছেন। কোমলমতি শিশুদের মনে ভীতি সঞ্চারের পরিবর্তে আদর, মমতা ও সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে শিক্ষা দানের ব্যবস্থাকে দৃঢ় ভাবে অটুট রাখতে নির্দেশনা রয়েছে।

উপজেলার অনেক স্কুলে এই নির্দেশনা যথাযথ ভাবে মান্য করা হচ্ছেনা। ছাত্রদের উপর বেতের ব্যবহারের পাশাপাশি কঠোর ও কুরুচিপূর্ণ ভাষার ব্যবহার, ভীতিকর আচরণের অনুশীলন মাঝে মধ্যে হতে দেখা যাচ্ছে। শিক্ষার্থীদের উপর এমন আচরণ জানতে পেরে অভিভাবকরা যখনই প্রতিবাদ মুখর হন, তখনই কোন না কোন শক্তির ছোঁয়ায় আইনের কাছে যাওয়ার সুযোগ থাকেনা। তাই মানুষ গড়ার কারিগররা শিক্ষার্থীতের শাসন করার নামে ভুলে যান শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কলা কৌশলের ব্যবহার। খড়গ হস্তে নেমে যান অমানবিক শাসনের কাজে। গত শনিবার বুধহাটা বিবিএম কলেজিয়েট স্কুলের ৯ম শ্রেণির ছাত্র সেলিম রেজাকে সরাসরি বেতের আঘাতে শাসনের নামে করা হয়েছে কঠিন আচরণ। ১/২টি নয় ৭/৮টি বেতের আঘাতে জর্জরিত করা হয়েছে তার ২ হাতের বাহু, কবজি ও পিঠের দিকে। একই সাথে একই ক্লাসের অভিষেককেও ৪/৫টি বেত্রাঘাত করা হয়েছে। মারার সময় শিক্ষকের ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ ক্লাসের সকল শিক্ষার্থীকে হতবাক করে দিয়েছে। মুখবুঝে সহ্য করেছিল কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। সেলিম স্কুল ছুটির পর বাড়িতে গিয়ে কাউকে কিছু না বলে গায়ের জামা খোলার সময় তার মা লক্ষ্য করেন তার শরীরে রক্তজমা চিহ্ন। জিজ্ঞাসা করতেই বেরিয়ে আসে শিক্ষকের নির্মম আচরণের কাহিনী। তার পিতা আব্দার আলি মিস্ত্রী ছুটে আসেন স্কুলে। প্রধান শিক্ষক তখন স্কুলে ছিলেননা, পিতার চোখে মুখে ক্রন্দনের চিহ্ন ্দেখে অনেকে তার কাছে এসে হাজির হন। তিনি তার পুত্রকে কেন অমানবিক ভাবে মারা হলো জানতে চেয়ে যখন কাঁদছিলেন, তখন ঐ অমানবিক আচরণকারী শিক্ষকও সেখানে এসে পিতার প্রশ্নের উত্তর দিতে অক্ষম হয়ে কাকুতি মিনতি করেন। শিক্ষকের নাম যুগোল চন্দ্র দাশ। তিনি অংকের ক্লাস নেওয়ার সময় একান্ড ঘটান।

এই স্কুলে এটাই প্রথম নয়। এর আগেও অনেকবার এমন ঘটনা ঘটেছে। জেলা শিক্ষা অফিসার পর্যন্ত ঘটনার তথ্য গেলেও শেষ মেষ অন্ধকারে নিভে গিয়েছিল অমানবিক আক্রমের শিকার শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের অভিযোগ। এছাড়া উপজেলার অনেক স্কুলে এমন ঘটনা ঘটে থাকে। কিন্তু অভিভাকরা প্রতিকার পাওয়ার জন্য এগিয়ে গেলেও শেষ পর্যন্ত দফারফা করতে বাধ্য হচ্ছেন।

এব্যাপারে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সচেতন মহল। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ বাকী বিল্লাহ জানান, শিক্ষকদের লাঠির ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। বুধহাটা স্কুলে বেত্রাঘাতের কোন অভিযোগ আমার কাছে আসেনি। আসলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।






সংযুক্তিমূলক সংবাদ ..

  • বুধহাটায় পল্লী বিদ্যুতের লোডশেডিংয়ে গ্রাহকরা অতিষ্ঠ
  • আশাশুনিতে পুলিশী অভিযানে ৮ আসামী গ্রেফতার
  • আশাশুনি থানার ওসি’র সাথে রিপোর্টার্স ক্লাব নেতৃবৃন্দের মত বিনিময়
  • আশাশুনিতে পুলিশী অভিযানে ৪ ওয়ারেন্টের আসামী গ্রেফতার
  • খরিয়াটিতে আওয়ামীলীগের অফিস উদ্বোধন
  • কাদাকাটিতে ভিজিএফ’র চাউল বিতরণ
  • সংবাদ প্রকাশের জের সাংবাদিক গাজী ফারহাদ কে হুমকি
  • পাইথালী মিলন মহল যুব সংঘের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রি বিতরন
  • Leave a Reply