প্রায়ই চোখ চুলকাচ্ছে? মুক্তি মিলবে এই ফলে

জায়ফল খাবারকে সুস্বাদু আর সুগন্ধি করে। এর উপকারিতাও অনেক। জায়ফল গরম মশলায় ব্যবহারের পাশাপাশি-ব্যবহার করা হয় বিভিন্ন ধরণের মিষ্টান্নে বা রান্নায়। নানা রকম ওষুধ হিসেবেও জায়ফল ব্যবহার করা হয়। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক জায়ফলের উপকারিতা-

গেঁটে বাতে জায়ফলের তেল মালিশ করলে উপকার পাওয়া যায়।
সঠিক পরিমাণে খেলে ডায়বেটিস রোগ সারে।

জায়ফল বেটে মিশ্রণটি চোখে লাগালে চুলকানিতে কমে যায়। কারণ এতে অ্যান্টিব্যকটেরিয়াল উপাদান রয়েছে।এছাড়াও জায়ফলের সুর্মা পরলে চোখের রোগে উপকার হয়।

নিয়মিত তেলের সঙ্গে মিশিয়ে কানে দিলে বধির হওয়ার সম্ভাবণা নেই।

জায়ফল

ঘামের দুর্গন্ধ দূর করে, বায়ু নিঃসারিত হয়ে যাওয়ার জন্যে বায়ুর আধিক্য কমে যায়।

জায়ফল ও শুকনো আদা গাওয়া ঘিয়ে ঘষে বাচ্চাদের খাওয়ালে সর্দির জন্যে যদি পেটের অসুখ করে তা সারবে।

জায়ফলের এক দু ফোঁটা তেল বাতাসা বা চিনির সঙ্গে মিশিয়ে খেলে পেট ব্যথা ও গ্যাস সারে।

একটা জায়ফলের এক চতুর্থাংশ গুঁড়ো পানিতে মিশিয়ে খেলে ঘুম ভাল হয়। অথবা জায়ফল ঘষে তার প্রলেপ কপালে লাগালে ঘুম ভাল হয়।

জায়ফল মায়েদের স্তনের দুধ বাড়িয়ে দেয়।

জায়ফলের তেলে ভেজানো তুলো দাঁতে রাখলে দাঁতের পোকা মরে যায় এবং দাঁতের ব্যথা কমে এবং পাইয়োরিয়া সারে।



(পরবর্তী র্সবাদ ...) »



সংযুক্তিমূলক সংবাদ ..

  • ছড়িয়ে পড়তে পারে চীনের নতুন ভাইরাস
  • ডায়াবেটিস হার্ট ফেইলিওর ঝুঁকি বাড়ায়
  • শীতে গুড় খেলে যেসব রোগ থেকে মুক্তি মিলবে
  • শিশুর কোষ্ঠকাঠিন্য প্রতিরোধের ঘরোয়া উপায়
  • মায়ের গর্ভে শিশু প্রতিবন্ধী হওয়ার কারণ ও করণীয়
  • মাড়ি থেকে রক্ত পড়া বন্ধ করুন এই উপায়ে
  • হার্ট ব্লক রুখবে ‘ম্যাজিক পানীয়’
  • ছয় মাসেই কিডনির পাথর গলবে এই পাতায়!
  • Leave a Reply