মরিচ পানীতেই দুই মিনিটে দূর হবে গলা ব্যথা বা খুসখুস!

ঠান্ডা, অ্যালার্জি, দূষণ, ধুলা এবং জোরে জোরে কথা বলার ফলে গলার পেশীর চাপ বেড়ে যায়। যার ফলে গলা ব্যথা বা গলা খুসখুস করার সমস্যা হয়। শীতে এই সমস্যা বেশি দেখা দেয়।

এসময় পাল্লা দিয়ে নাক বন্ধ, গলা খুসখুস, মাথা ব্যথার সমস্যা তো রয়েইছে। কাশি, ঠান্ডা এবং গলার সাধারণ কিছু বিরক্তিকর সমস্যা শীতকে উপভোগ করতেই বাধা দেয়। তবে যুগ যুগ ধরেই এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে আমরা আস্থা রেখেছি ঘরোয়া টোটকাতেই। মাত্র ৩ টি ঘরে পাওয়া সহজলভ্য উপাদানে তৈরি পানীয়তেই এই সমস্যা থেকে মুক্তি মিলবে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক এটি তৈরি ও সেবন পদ্ধতি-

যা যা লাগবে
১ চা চামচ আদা কুচি, আধা চা চামচ কালো মরিচ বা গোল মরিচ, ১ চা চামচ মধু।

পদ্ধিতি
একটি পাত্রে এক কাপ পানি নিন। পানি ভালো করে ফোটান। এবার পানিতে আদা এবং কালো মরিচ যোগ করুন এবং তাপ কমিয়ে দিন। এখন এই মিশ্রণে মধু যোগ করুন এবং প্রায় দুই মিনিটের জন্য ঢাকা দিয়ে রেখে দিন। কাপে ঢেলে হালকা উষ্ণ অবস্থায় খান।

ঠান্ডা, কাশি এবং গলার চিকিত্সার জন্য আদাটি বেশ পুরনো প্রথাগত টোটকা। আদায় উপস্থিত সক্রিয় উপাদান জিঞ্জেরোল আমাদের শরীরকে শক্তিশালী করে তাত্ক্ষণিক আরাম জোগায়।

কালো মরিচ বা গোল মরিচ ভিটামিন সি, ফ্ল্যাভোনয়েডস, অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস এবং অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদানে সমৃদ্ধ বলে কাশি এবং ঠান্ডা লাগার সমস্যায় কাজ দেয়। মধু একটি প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক।

মধুতেও প্রয়োজনীয় ভিটামিন এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস রয়েছে। মধু ভিটামিন সি, ডি, ই, কে এবং বি কমপ্লেক্স এবং বিটা ক্যারোটিন সমৃদ্ধ যা অনাক্রম্যতা বাড়ানোর জন্য পরিচিত।






সংযুক্তিমূলক সংবাদ ..

  • ছড়িয়ে পড়তে পারে চীনের নতুন ভাইরাস
  • ডায়াবেটিস হার্ট ফেইলিওর ঝুঁকি বাড়ায়
  • শীতে গুড় খেলে যেসব রোগ থেকে মুক্তি মিলবে
  • শিশুর কোষ্ঠকাঠিন্য প্রতিরোধের ঘরোয়া উপায়
  • মায়ের গর্ভে শিশু প্রতিবন্ধী হওয়ার কারণ ও করণীয়
  • মাড়ি থেকে রক্ত পড়া বন্ধ করুন এই উপায়ে
  • হার্ট ব্লক রুখবে ‘ম্যাজিক পানীয়’
  • ছয় মাসেই কিডনির পাথর গলবে এই পাতায়!
  • Leave a Reply