৮০ হাজার ছাড়িয়েছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা

সাতক্ষীরা নিউজ ডেস্ক :: ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর সংখ্যা ৮০ হাজার ছাড়িয়েছে। পরিসংখ্যান বলছে, চলতি বছর রাজধানীসহ সারাদেশের সরকারি-বেসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত হাসপাতালে মোট ভর্তি হন ৮০ হাজার ৪০ জন রোগী। এর মধ্যে রাজধানী ঢাকায় ৪৪ হাজার ৬৬৭ জন ও বিভাগীয় শহরে ৩৫ হাজার ৩৭৩ জন ভর্তি হন।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোলরুমের সহকারী পরিচালক ডা. আয়েশা আক্তার জানিয়েছেন, ঢাকা শহরে ১২টি সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত হাসপাতালে ২৬ হাজার ৩৪০ জন ও বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিকে ১৮ হাজার ৩২৭ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হন। ভর্তি এসব রোগীর মধ্যে ইতোমধ্যেই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৭৬ হাজার ৯৩৭ জন। বর্তমানে সারাদেশে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ২ হাজার ৯০০ জন। এসব তথ্য জানিয়েছেন
এ ছাড়া ঢাকার বাইরে ভর্তি মোট রোগীর মধ্যে ঢাকা বিভাগে (ঢাকা শহর ছাড়া) ৮ হাজার ৯২৪ জন, চট্টগ্রামে ৬ হাজার ৮৮ জন, খুলনায় ৬ হাজার ৮৯০ জন, রংপুরে ১ হাজার ৮৪৩ জন, রাজশাহীতে ৩ হাজার ৮৪০ জন, বরিশালে ৪ হাজার ৯০৫ জন, সিলেটে ৮৬৩ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ২ হাজার ২০ জন রোগী ভর্তি হন।
এদিকে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) কাছে ডেঙ্গু সন্দেহে ২০৩টি মৃত রোগীর তথ্য এসেছে। এ সন্দেহের সংখ্যা গতকাল পর্যন্ত ১৯৭ ছিল। এরমধ্যে ১০১টি মৃত্যু পর্যালোচনা করে ৬০টি ডেঙ্গুজনিত মৃত্যু নিশ্চিত করেছে প্রতিষ্ঠানটি। সরকারের এই গবেষণা প্রতিষ্ঠানটির মতে, ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত মৃত্যুর ৩৮ দশমিক ৫ শতাংশের বয়সই ১৮ বছরের নিচে। যাদের মধ্যে ১২ জনের বয়স ৫ থেকে ১৫ বছরের মধ্যে। যা মোট মৃত্যুর ২৩ দশমিক ১ শতাংশ।
আইইডিসিআরের বিশেষজ্ঞরা জানান, ৬০ জনের মধ্যে ৪০ জনের ডেঙ্গু শক সিন্ড্রোম এবং ৭ জনের হেমোরেজিক জ্বর ছিল। ২৩ জনের মধ্যে এর আগে ডেঙ্গু আক্রান্ত হওয়ার প্রমাণ পাওয়া গেছে। এছাড়া মৃতদের মধ্যে ২১ জনের বয়সই ১৮ বছরের নিচে।
এদিকে চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মোট ৯ জন চিকিৎসকসহ চিকিৎসার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি মারা গেছেন। দেশের সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন হাসপাতালের চিকিৎসক ও বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন সূত্রে এ তথ্য জানা যায়। কিন্তু সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান বলছে এ সংখ্যা ৯ নয়, ৫।
চিকিৎসকদের কেন্দ্রীয় সংগঠন বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের কাছে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসকদের মৃতের সংখ্যা ৯ জন জানালেও সঠিক হিসাব নেই, আছে শুধু চারজনের নাম। বরং তারাই বলছে মৃতের সংখ্যা আরও বেশি কিন্তু তাদের কাছে সে তথ্য নেই।
যশোরে একজনের মৃত্যু :
যশোরে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মেহেরুন নেছা (৪০) নামের এক গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনি মারা যান। নিহত মেহেরুন নেছা যশোরের মণিরামপুর উপজেলার রোহিতা ইউনিয়নের সালামতপুর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী ও ২ সন্তানের জননী।
নিহতের স্বামী ব্যবসায়ী আব্দুর রাজ্জাক বলেন, তার স্ত্রী গত ৩/৪ দিন ধরে জ্বরে ভুগছিলেন। গত বুধবার তার রক্ত পরীক্ষা করলে ডেঙ্গু ধরা পড়ে। তাকে ঝিকরগাছার একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। কিন্তু ওই দিন রাতেই তার রক্তের প্লাটিলেট দ্র“ত নেমে যাওয়ায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। কিন্তু অবস্থার অবনতি হলে তাকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় যশোর জেনারেল হাসপাতালে রেফার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকরা। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে প্রাথমিক ভাবে পরীক্ষা নিরীক্ষা করে ডাক্তাররা তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করে জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক উজ্জল কুমার। রাত সাড়ে ৮টার দিকে খুলনা মেডিকেলে নেওয়ার পথে মণিরামপুরের কাছে রাস্তায় সে মারা যায়। তার পরও তাকে মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্রেক্সে নিয়ে যায়। কিন্তু ডাক্তাররা তাকে মৃত ঘোষনা করেন।
এদিকে এ পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মণিরামপুরের মশ্মিনগর ও রোহিতা ইউনিয়নের ৪ নারীর মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া এ পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে যশোরে ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছে এ পর্যন্ত প্রায় ২ হাজারের বেশি মানুষ। যাদের অধিকাংশই নারী ও শিশু এবং শ্রমজীবী মানুষ। এদের মধ্যে প্রায় ৭০ শতাংশ চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফিরে গেছে। বর্তমানে যশোর জেনারেল হাসপাতালসহ জেলার সকল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও প্রাইভেট ক্লিনিকে প্রায় ৫শ’ মানুষ চিকিৎসাধীন আছেন। তবে এই বিষয়টি নিয়ে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ বা স্ব স্ব পৌর কর্তৃপক্ষের তেমন কো গা জ্বালা নেই। নেই ডেঙ্গ মশা নিধনে কার্যকর কোন উদ্যোগ।






সংযুক্তিমূলক সংবাদ ..

  • হেলমেট পরে বাইকে চড়ে ঘুরছে কুকুর
  • এবার স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি বাদ
  • ক্রিকেটারদের সব দাবি মানা হবে: পাপন
  • শিক্ষকদের মহাসমাবেশে পুলিশের বাধা
  • সাংবাদিকরা মানুষের মনন তৈরি করার ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখতে পারে: ড. হাসান মাহমুদ
  • ভেঙে যাচ্ছে মেননের ওয়ার্কার্স পার্টি!
  • সড়ক নিরাপদ রাখার দায়িত্ব সকলের : প্রধানমন্ত্রী
  • বেনাপোলে ৭টি সংগঠনের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত
  • Leave a Reply