জয় দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু ইংল্যান্ডের

বিশেষজ্ঞদের ফেভারিট তকমার প্রতি সুবিচার করেই বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করল ইংল্যান্ড৷ কেনিংটন ওভালে উদ্বোধনী ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হেলায় হারায় ইয়ন মরগানবাহিনী৷ ৩১২ রান তাড়া করে ২০৭ রানে শেষ হয়ে যায় প্রোটিয়াবাহিনী৷

বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচেই ১০৪ রানে জয় তুলে নিলো স্বাগতিকরা৷ বিশ্বকাপের চূড়ান্ত ১৫ জনের দলে না-থাকা জোফ্রা আর্চারই দক্ষিণ আফ্রিকা ইনিংসে ধস ধরান৷আর্চার ইদক্ষিণ আফ্রিকা ইনিংসে ধস ধরান৷শুরুতেই তাঁর বাউন্সারে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন হাশিম আমলা৷ পরে শেষ দিকে ব্যাটিং করতে মাঠে নামলেও দলকে জেতাতে পারেননি প্রোটিয়া ওপেনার৷ সাত ওভার হাত ঘুরিয়ে মাত্র ২৭ রান খরচ করে তিনটি উইকেট তুলে নেন আর্চার৷

তবে অল-রাউন্ড পারফর্ম করে ম্যাচের সেরা বেন স্টোকস৷ প্রথম ব্যাট হাতে ম্যাচের সর্বোচ্চ স্কোর করার পর বল হাতে দু’টি উইকেট এবং দুরন্ত ক্যাচ নিয়ে ইংল্যান্ডকে সহজ জয় এনে দেন এই ইংরেজ অল-রাউন্ডার৷ ২.৫ ওভার বোলিং করে মাত্র ১২ রান দিয়ে দু’টি উইকেট তুলে নেন স্টোকস৷

এর আগে অভিজাত ওভালে ক্রিকেটের মেগা ইভেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে টস জিতে ইংল্যান্ডকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান দক্ষিণ আফ্রিকা দলনায়ক ফ্যাফ ডু’প্লেসি। চোটের কারণে পূর্ব ঘোষণামতোই উদ্বোধনী ম্যাচে স্পিডস্টার ডেল স্টেইনকে ছাড়া মাঠে নামে প্রোটিয়ারা।

বেয়ারস্টো মাত্র ১ রানে ড্রেসিংরুমে ফিরে যাওয়ার পর শুরুটা করেন জেসন রয়। প্রাথমিক ধাক্কা কাটিয়ে ইনিংসের হাল ধরেন সাম্প্রতিক সময়ে বিধ্বংসী ফর্মে থাকা এই ইংরেজ ওপেনার। ভুল শট নির্বাচন করে ৫৪ রানে আউট না হলে শতরান হাঁকিয়ে মাঠ ছাড়তে পারতেন রয়৷ জেসনের ইনিংস সাজানো ৮টি চার দিয়ে৷ রয়ের সঙ্গে জুটি বেঁধে ইংল্যান্ড জার্সিতে দিনের দ্বিতীয় অর্ধশতরানটি আসে জো রুটের ব্যাট থেকে৷ ৫৬ বল খেলে ৫০ রান পূর্ণ করেন ইংল্যান্ডের প্রাক্তন ওয়ান ডে কাপ্তান৷ শেষ পর্যন্ত ৫১ রানে আউট হন রুট৷ তাঁর ইনিংস সাজানো ৫টি চার বাউন্ডারিতে৷

ইনিংসের মাঝপথে রয়-রুট দ্রুত আউট হয়ে ফিরলে অর্ধশতরান হাঁকিয়ে থ্রি-লায়ন্সদের ইনিংসকে এগিয়ে নিয়ে যান কাপ্তান ইয়ন মরগান৷ ৬০ বল খেলে ৪টি বাউন্ডারি ও ৩টি ওভার বাউন্ডারির সাহায্যে ৫৭ রানের দুরন্ত ইনিংস উপহার দেন মর্গ্যান৷ দিনের চতুর্থ অর্ধশতরান আসে স্টোকসের ব্যাটে৷ টেল এন্ডার ব্যাটসম্যানদের সঙ্গে জুটি বেঁধে শেষ পর্যন্ত দলের রানকে ৩০০ রানের গন্ডি ছুঁইয়ে দেন এই অল-রাউন্ডার ব্যাটসম্যান। ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্নে ব্রিজ হতে পারেন স্টোকস, এমনটাই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

প্রথম ম্যাচেই নামের প্রতি সুবিচার করে শতরানের দোরগোরায় পৌঁছে গিয়েছিলেন স্টোকস।কিন্তু শতরান মাত্র থেকে ১১ রান দূরে থেমে যান স্টোকস৷ ৪৯ তম ওভারের শেষ বলে ব্রিটিশ অলরাউন্ডের ইনিংস শেষ হয় ৮৯ রানে৷ ৭৯ বলে তাঁর ইনিংস সাজানো ছিল ৯টি ছক্কায়। বাটলার ১৮, মইন আলি ৩ ও ক্রিস ওকস ফেরেন ১৩ রানে। শেষ ওভারে ১১ রান সংগ্রহ করেন অপরাজিত দুই ব্যাটসম্যান লিয়াম প্লানকেট ও জোফ্রা আর্চার। প্লানকেট ৯ রানে ও আর্চার অপরাজিত থাকেন ৭ রানে। ৫০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ৩১১ রানে শেষ হয় আয়োজকদের ইনিংস।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
ইংল্যান্ড: ৫০ ওভারে ৩১১/৮ (বেন স্টোকস ৮৯, মরগান ৫৭, জেসন রয় ৫৪, জো রুট ৫১; লুঙ্গি এনডিগি ৩/৬৬ )।

দক্ষিণ আফ্রিকা: ৩৯.৫ ওভারে ২০৭/১০ (ডি কক ৬৮, দাসুন ৫০, ফেয়ালুকাওয়ে ২৪; আর্চার ৩/২৭)। ফল: ইংল্যান্ড ১০৪ রানে জয়ী।






সংযুক্তিমূলক সংবাদ ..

  • পেরুকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাজিল
  • জেনে নিন বিশ্বকাপে সবশেষ কার পয়েন্ট কত?
  • ভারতকে ঘাম ঝরিয়ে ছাড়লো আফগানিস্তান
  • মালিঙ্গার গতিতে উড়ে গেল ইংল্যান্ড
  • টাইগারদের বীরত্বের পরাজয়
  • উইন্ডিজের বিপক্ষে ইতিহাস গড়ে টাইগারদের জয়
  • পাকিস্তানকে ৮৯ রানে হারালো ভারত
  • শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে শীর্ষে অস্ট্রেলিয়া
  • Leave a Reply