তালায় রেকডীয় জমির গাছ কেটে সাবাড় করেছে দূর্বৃত্তরা


এসকে রায়হান :: তালায় ২য় দফায় ফসলি জমির গাছ কেটে সাবাড় করেছে দূর্বৃত্তরা। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার ভোরে উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নের জালালপুর মৌজায় বিলের মধ্যে।

এক অসহায় দিন মজুরের ভোগ-দখলীয় জমিতে লাগানো প্রায় একশতটি কলা গাছ, ঝাল ও ফলনশীল বেগুনের গাছ উপড়ে ফেলেছে এলাকার একটি কুচক্রী মহল। ক্ষতিগ্রস্থ দিনমজুর হলেন, জালালপুর গ্রামের মৃত শরিতুল্লাহ গোলদারের ছেলে মনছোপ গোলদার। এ ঘটনায় মনছোপ গোলদার বিচারের জন্য দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন।

মনছোপ গোলদার জানান, ১৯৯০ সালে জালালপুর মৌজার ৩৩ দাগের ১নং খাস খতিয়ানের ৩৩ শতাংশ খাস জমি বাংলাদেশ সরকারের কাছ থেকে রেষ্ট্রি কোবলা মুলে ৯৯ বছরের বন্দোবস্ত নিয়ে ভোগ দখল করে আসছে। কিন্তু এলাকার কিছু কুচক্রী ব্যক্তি ধুলন্ডা গ্রামের আফসার শেখের ছেলে আব্দুল শেখ, নেহালপুর গ্রামের মোনতাজ শেখের ছেলে কালাম শেখ, একই গ্রামের মজিবার শেখ, ইছহাক শেখ, জাকির শেখ, আক্কাজ শেখসহ আরও অনেকে বৃহস্পতিবার ভোরে তার জমিতে রোপন করা প্রায় একশতটি কলা গাছ, ঝাল ও ফলনশীল বেগুনের গাছ উপড়ে ফেলে। এতে দিনমজুর মনছোপ মারাত্মক ক্ষতির সম্মুখিন হয়েছে।

তিনি আরও জানান, জমির এক পাশ দিয়ে জনগনের যাতয়াতের রাস্তা রেখে দিলেও একটি কুচক্রি মহল সেই রাস্তা দিয়ে যাতয়াত না করে জমির মাঝখান বরাবর রাস্তা দেওয়ার জন্য দীর্ঘদিন চাপ প্রয়োগ করে আসছে। মাঝখান বরাবর রাস্তাদিলে ফসল করার ব্যপক ক্ষতি হবে বিধায় জমির একপাশ দিয়ে রাস্তা দেওয়ার কথা জানান তিনি। কিন্তু সেটি মেনে না নিয়ে তাকে এমন ক্ষতি করা হয়েছে। এঘটনায় মনছোপ গোলদার সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ঠ দপ্তরের উর্দ্বতন কর্তৃপক্ষে আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এব্যাপারে জালালপুর ইউপি চেয়ারম্যান জানান, আমি বলে ছিলাম কয়েক দিন অপেক্ষা করতে। কিন্তু এলাকার কিছু লোক আমার কথা না শুনে তাদের ইচ্ছামত কলা গাছ উপড়ে ফেলে দিয়েছে। এটা অত্যন্ত দুঃখ জনক এবং এতে মনছোপের মারাত্মক ক্ষতি হয়েছে।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) অনিমেশ বিশ্বাস জানান, মনছোপ গোলদার ঐ জমি সরকারের নিকট থেকে ৯৯ বছরের বন্দোবস্ত নিয়ে ভোগদখল করে আসছে। ঐ জমির পাশ দিয়ে যাতায়াতের একটি রাস্তা সে রেখে দিয়েছে। কিন্তু এলাকার গুটি কয়েক ব্যক্তি তাকে ক্ষতির হীন মানষে জমির মাঝখান দিয়ে রাস্তা দিতে বলে। এ ঘটনায় আমি সরে জমিন গিয়েছিলাম এবং বলে এসেছি স্থানীয় চেয়ারম্যানকে সাথে নিয়ে যদি আরও প্রশস্ত রাস্তার প্রয়োজন হয় তাহলে বসাবসির মাধ্যমে সেটা করতে হবে। কিন্তু হঠাৎ তার ফসলের ক্ষতি করে ফৌজদরী অপরাধ করেছে। বিষয়টি থানা পুলিশ দেখবে।

তালা থানা অফসার ইনচার্জ (ওসি) মেহেদী রাসেল জানান, বিষয়টি নিয়ে আমার কাছে কেউ লিখিত অভিযোগ করেনি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



« (পূর্ববর্তী সংবাদ ...)



সংযুক্তিমূলক সংবাদ ..

  • পাটকেলঘাটায় ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে কলেজ প্রভাষকের মৃত্যু
  • ঢাকায় আইসিইউর সাপোর্টে শাহীনের অবস্থা স্থিতিশীল ॥ আসামীদের গ্রেফতারে সাতক্ষীরা উত্তাল
  • জুসখোলার মোমিনউদ্দিন পৈতৃক জমির দখল চান
  • সাংবাদিক আশরাফ আলীর মায়ের ইন্তেকাল: সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের শোক
  • পাইকগাছা উপজেলা মাসিক আইন শৃংখলা সভা অনুষ্ঠিত
  • পিকনিকে অতর্কিতে হামলা ! ভাংচুর , অগ্নিসংযোগ।
  • ন্যায় বিচার ও মিথ্যা মামলা থেকে রেহায় পেতে সংবাদ সম্মেলন
  • অবশেষে সাতক্ষীরা পল্লী বিদ্যুৎ কর্মকর্তার ভুলের দ্বায় স্বীকার।
  • Leave a Reply