সিরিয়ায় গাড়িবোমা বিস্ফোরণে নিহত ১০০

116749_580

সিরিয়ায় একটি গাড়িবোমা বিস্ফোরণে প্রায় ১০০ জন নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৫৫ জন। স্থানীয় সময় শনিবার উত্তর-পশ্চিম সিরিয়ার আলেপ্পো শহরের উপকণ্ঠে রাশিদিন এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

একটি চুক্তির আওতায় যুদ্ধে ক্ষতিগ্রস্তরা সরকারনিয়ন্ত্রিত এলাকা থেকে ত্যাগ করছিল। তাদের বহনকারী বাসগুলো পার্ক করা ছিল। এসব বাসে কয়েক হাজার মানুষ ছিল। এ অবস্থায় সেখানে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেলে প্রকাশ করা ভিডিওতে দেখা যায়, বোমা বিস্ফোরণে ধ্বংস হয়ে যাওয়া কয়েকটি বাস রাস্তার পাশে পড়ে আছে। লোকজন ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ খতিয়ে দেখছে। বাসের বাইরে হামলায় নিহতদের লাশও পড়ে থাকতে দেখা যায় ওই ভিডিওতে।

আরব নিউজ এজেন্সি নামে একটি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, বাসগুলো ওই অঞ্চল থেকে জেবরিন এলাকায় যাচ্ছিল। সেখানে আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে খাবার ও চিকিৎসা সুবিধা রয়েছে।

রামি আবদুর রহমান নামের সিরিয়ার একটি মানবাধিকার সংস্থার প্রধান জানান, গাড়িতে খাবার আছে দাবি করে হামলাকারী একটি পেট্রলপাম্পে প্রবেশ করে। এরপর আত্মঘাতী হামলা চালায়। তবে হামলার দায় এখন পর্যন্ত স্বীকার করেনি কেউ।

শিয়া-সুন্নি বিনিময় চুক্তির অংশ হিসেবে হামলার শিকার বাসযাত্রীদের এলাকা ত্যাগের অনুমতি দেওয়া হয়। সিরীয় সরকার ও বিদ্রোহীদের মধ্যে সম্প্রতি ওই চুক্তি করা হয়।

চলতি মাসেই সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় ইদলিব প্রদেশের খান শেইখুন শহরে রাসায়নিক হামলায় ৭২ জন নিহত হন। ওই হামলার জন্য আসাদ সরকার ও তার সহযোগী রাশিয়াকে দায়ী করে যুক্তরাষ্ট্র। ওই হামলার জবাবে সিরীয় সরকার নিয়ন্ত্রিত একটি বিমানঘাঁটিতে প্রায় ৬০টি টমাহক ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ে। যদিও গোড়া থেকেই রাসায়নিক হামলার অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে সিরিয়ার আসাদ সরকার।






সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • মেক্সিকোজুড়ে মাদক নিয়ে লড়াইয়ে নিহত ৩৫
  • ফ্রান্স নির্বাচন: দ্বিতীয় ধাপে যাচ্ছেন ম্যাক্রন এবং লে পেন
  • মার্কিন নৌবহরে যোগ দিল জাপানের যুদ্ধজাহাজ
  • উত্তর কোরিয়ার সীমান্তে রাশিয়ার সেনা
  • ভেনিজুয়েলারে বিক্ষোভ, পুলিশের গুলিতে ৩ জন নিহত
  • যেখানে স্বৈরতন্ত্র, সেখানে প্রেসিডেন্সিয়াল পদ্ধতি থাকে না : এরদোগান
  • গণভোটে জয়ী হওয়ায় এরদোয়ানকে অভিনন্দন ট্রাম্পের
  • ঐতিহাসিক বিজয়ের পর যা বললেন এরদোগান!