অবৈধ্য ভাবে বালু স্তুপে ভাতশালা-কোমরপুর ব্রীজ ও সড়কের বেহালদশায় পরিণত

2

এমএ মামুন :: দেবহাটার পারুলিয়া ও দেবহাটা সদর ইউনিয়নের ভাতশালা-কোমরপুরের মিলনস্থল ব্রীজ ও রাস্তা বেহালদশায় পরিণত হয়েছে। সাম্প্রতিক বিষয়টি নিয়ে স্থানীয়রা প্রতিকার চেয়ে বিভিন্ন দপ্তরের অভিযোগ করলেও প্রতিকার হয়নি বলেও অভিযোগ পাওয়াগেছে। উক্ত ব্রীজ সংলগ্ন সড়কটির বিভিন্ন স্থানে বালুস্তুপ করে রেখে ট্রলিসহ ইঞ্জিনচালিত যানবহন অতিমাত্রায় চলার কারনে রাস্তাটির বিভিন্ন স্থানে খানা-খন্দ হয়ে জনসাধারণের দুর্ভোগ চরম আকার ধারণ করেছে। ভাতশালার বিশ্বাসপাড়া থেকে কোমরপুর মোড় পর্যন্ত রাস্তাটিতে চলাচলে এখন মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এর ফলে প্রতিনিয়ত চলাচলের সময় ঘটছে ছোট-বড় ধরনের দুর্ঘটনা। তারপরও জীবন-জীবিকা ও প্রয়োজনের তাগিদে প্রতিদিন ঝুঁকি নিয়ে ব্রীজ ও সড়ক দিয়ে গাড়ি চালাচল করছে। এ সড়কে চলাচলকারী যাত্রীদের মধ্যে চরম ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজ করছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ব্রীজের দুপাশে অবৈধ্য বালুতে সড়কটিতে দখল করে রাখায় খালে পানিতে পড়েগিয়ে দূর্ঘটনা দেখা দিচ্ছে। প্রশাসনের উদাসীনতা আর দূরর্শিতায় দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার কাজ না হওয়ায় বিভিন্ন স্থানে ছোট-বড় অসংখ্য গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। ব্রীজের সম্মুখভাগে অসংখ্য গর্তে বালুতে পরিপূর্ণ হওয়ায় যানবহন যাওয়ার ফলে চলাচলে বিঘœ ঘটছে। স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তিদের ছত্রছায়ায় রাস্তার দু’পাশের জায়গা দখল করে নিজের স্বার্থে বালু রেখেছেন আর তাতে সমস্যার সৃষ্টির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। দখল আর পার্শ্ব ভাঙার ফলে রাস্তা ছোট হয়ে যাওয়ায় দু’টি গাড়ি যাওয়া-আসার সময় প্রায়ই দুর্ঘটনার শিকার হয়।

এদিকে, এলাকাবাসী অভিযোগ করেছেন ভাতশালা ছয়নেট ঝুঁকির মুখে দক্ষিণপাড়ে ভরাট কুল উত্তরপাড় বাগানকুলে সরকার নেট কালভাট নির্মান করেছে। কিন্তু সেখানে ভাতশালা এলাকার মহব্বত আলী একাই গেটের উত্তরপাড়ে বালির নৌকা উঠানামানো করার ফলে আরসিসি ব্লক সরেযেয়ে নদীভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। এ বিষয়ে পারুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ইউনিয়নের রাস্তাগুলোতে কাজ চলছে, ধারাবাহিকভাবে রাস্তার কাজ শুরু করা হবে। তাছাড়া জনসাধারণের জন্য ব্যক্তিস্বার্থের বিরুদ্ধে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। বর্তমান নিরূপায় হয়ে যাত্রীরা প্রতিদিন মারাত্বক ঝুঁকি নিয়ে এমতাবস্তায় শ্রীঘ্রই সংস্কার কাজ করা না হলে এ সড়কটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়বে। এ সড়কে চলাচলকারী জনসাধারণের নিত্য দিনের এই ভোগান্তি লাঘবে তারা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছেন।






সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • সিকান্দার আবু জাফর ছিলেন বাংলা সাহিত্যাঙ্গনে এক উজ্জ্বল নক্ষত্র : বিভাগীয় কমিশনার
  • আশাশুনি আন্তর্জাতিক বই দিবস পালন
  • শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের দক্ষতা উন্নয়নে প্রশিক্ষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত
  • কলারোয়ায় মহান মে দিবস উপলক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা
  • বিনেরপোতা ত্রিশ মাইলে লবণ সহিষ্ণু জাত বিনা ধান -১০ এর মাঠ দিবস
  • ভিক্ষুকদের কর্মসংস্থান ও পুনর্বাসনের জন্য নগদ অর্থ বিতরণ
  • সাতক্ষীরাকে ভিক্ষুকমুক্ত ঘোষণা করলেন বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুস সামাদ
  • কলারোয়ায় ঘাতক পরিবহন কেড়ে নিলো মৎসজীবীর প্রাণ