সলঙ্গা আড়তের শসা যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন স্থানে

pic-02-866x428

মারুফ সরকার :: সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা আড়তের শসা যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন স্থানে। সলঙ্গাসহ চলনবিল অঞ্চলের-বিভিন্ন গ্রামে শসার চাষ হয়ে থাকে। অন্য পেশার পাশাপাশি প্রায় ৮০ ভাগ কৃষক শসা চাষের সাথে জড়িত।

এ এলাকার জলবায়ু,মাটি ও পানি শসা চাষের জন্য বেশ উপযোগী। উত্তরবঙ্গের প্রবেশদ্বার সলঙ্গার হাটিকুমরুলে শসার আড়ৎ চলে সকাল ৮ টা থেকে দুপুর পর্যন্ত। সলঙ্গাসহ চলনবিলের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে ভোর বেলায় শসা চাষিড়া ক্ষেত থেকে শসা তুলে আড়তে নিয়ে আসে। অল্প খরচে ভালো লাভ হওয়ায় উল্লেখিত এলাকার কৃষক ঝুকছেন শসা চাষে। আর এ শসার জনপ্রিয়তা রয়েছে দেশজুড়ে।

শুক্রবার সরেজমিনে আড়তে গেলে সলঙ্গা থানার দাদপুর পশ্চিম পাড়া গ্রামের সাইফুল নামের এক কৃষক জানান-এক বিঘা জমিতে আমার ১২ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। এপর্যন্ত ২২ হাজার টাকা বিক্রি করেছি। আরও ২০থেকে ২২ হাজার টাকার শসা বিক্রি করা যাবে। তাড়াশের সোনাপাতিল গ্রামের শাহাদৎ হোসেন নামের এক কৃষক জানান-বীজ রোপনের এক মাসের মাথায় ফল ধরতে শুরু করে। বিক্রি করা যায় ৪ মাস পর্যন্ত । বিঘা দুই জমিতে শসা চাষ করে আমি আমার সংসারসহ আতœীয়-স্বজন দেখা শোনা করি। উল্লাপাড়া উপজেলার জাহাঙ্গীর নামের এক কৃষক জানান-শসার ফলন ভাল ও সুন্দর্যের কারনে বিভিন্ন স্থানে আমাদের শসা জনপ্রিয় ।

চাষিরা জানান-শসা তুলে তা সকালে সলঙ্গার হাটিকুমরুল আড়তে নিয়ে আসি। বিভিন্ন যায়গায় থেকে বেপারীরা এসে তা ক্রয় করে নিয়ে যায়। অনেক চাষী আবার ক্ষেত থেকেই পাইকরাী হিসেবে ব্যাপারীদের কাছে বিক্রি করে থাকেন। আব্দুর রাজ্জাক নামের এক ব্যাপারী জানান-৩০ থেকে ৩৫ কেজির শসার বস্তা কিনি ৩শ থেকে ৩৫০ টাকাতে। ঢাকাতে নিয়ে বিক্রি করি ৫শ থেকে সাড়ে ৫শ টাকা। আলহাজ নামের আরেক ব্যাপারী বলেন-হাটিকুমরুল শসার আড়ৎ থেকে প্রতিদিন একেক ব্যাপারী ১৫ থেকে ২০ বস্তা শসা ক্রয় করে থাকেন।

মূলত এখনকার উৎপাদিত শসা ঢাকা,খুলনা,চট্রগ্রাম,বগুড়া,টাঙ্গাইলসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আমরা ট্রাক যোগে নিয়ে বেশি দামে তা বিক্রি করি। কৃষিবিদ সাইফুল ইসলাম বলেন-শসা খাওয়া মানবদেহের জন্য অনেক উপকারী সবজি। শসা একটি অতি জনপ্রিয় সবজি জাতীয় উদ্ভিদ। কাঁচা শসা সালাদ হিসেবে খাওয়ার জন্য সর্বপেক্ষা ব্যবহৃদ হয়ে থাকে। নিয়মিত অধিক পরিমাণে এ ধরনের সবজি গ্রহনে মানবদেহের অতিরিক্ত চর্বি ও কোষ্ঠ-কাঠিন্যতা দুর হয়।






সঙ্গতিপূর্ণ সংবাদ

  • দেবহাটার সখিপুরে কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত
  • চিরিরবন্দরে আমগাছে মুকুলের সমারোহ
  • কলারোয়ায় কৃষি ঋণ মেলা অনুষ্ঠিত
  • কাজিপুরে ১৩০ কোটি টাকার মরিচ বেচাকেনার সম্ভাবনা
  • চিরিরবন্দরে আগাম রসুন উত্তোলন শুরু দামে খুশী চাষিরা
  • ডিএই-ব্লু গোল্ড প্রোগ্রামের প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটিং ডাইরেক্টরের মৌসুমব্যাপি প্রশিক্ষক প্রশিক্ষণ কোর্সের কার্যক্রম পরিদর্শন
  • দেবহাটার উত্তর পারুলিয়ায় মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত