রিয়ালকে রুখতে পারবে নাপোলি?

014251kalerkantho-com-07-03-17-69_

সাতক্ষীরা নিউজ ডেস্ক ::

চ্যাম্পিয়নস লিগের অন্তত কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা রিয়াল মাদ্রিদের ধরাবাঁধা। সর্বশেষ ছয় মৌসুম ধরে তো এমনটাই হচ্ছে। ওই নিয়মের ব্যতিক্রম করার চ্যালেঞ্জের সামনে দাঁড়িয়ে নাপোলি। যারা কিনা আবার ইউরোপসেরা প্রতিযোগিতার কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠেনি কখনো। ডিয়েগো ম্যারাডোনোর সেই সাফল্যে ভেসে যাওয়া সময়েও না।

নাপোলির সামনে তাই পাহাড়প্রমাণ বাধা। ওদিকে রিয়াল মাদ্রিদ প্রথম লেগ ৩-১ গোলে জিতে শেষ আটে দিয়ে রেখেছে এক পা। আজ ঘরের মাঠের দ্বিতীয় লেগে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের পাশাপাশি ইতিহাস ডিঙানোর চ্যালেঞ্জ ইতালিয়ান ক্লাবটির। জিনেদিন জিদানের জন্য যে উপলক্ষ কেবল যেন আনুষ্ঠানিকতা পূরণের।

আজকের অন্য দ্বৈরথেও রয়েছে ‘ছয়’-এর সম্পর্ক। চ্যাম্পিয়নস লিগে রিয়াল মাদ্রিদের দৌড় যেমন সর্বশেষ ছয় মৌসুম ধরে কোয়ার্টার ফাইনালের আগে থামে না, আর্সেনালের আবার উল্টো দশা। সর্বশেষ ছয় মৌসুম কোয়ার্টারের আগের ধাপ শেষ ষোলোতে মুখ থুবড়ে পড়েছে তারা। এবার বড় আশা ছিল ব্যতিক্রমের। কিন্তু ‘নিয়ম’-এর জালেই হয়তো আটকে যেতে হবে আর্সেন ওয়েঙ্গারের দলকে। বায়ার্ন মিউনিখের কাছে প্রথম লেগে যে ১-৫ গোলে হেরেছে তারা! আজ নিজেদের মাঠের দ্বিতীয় লেগে দ্বৈরথের ফল উল্টে দেওয়ার কাজটি কম কঠিন নয়!

রিয়াল-নাপোলি ম্যাচে ফেভারিট নিঃসন্দেহে সফরকারীরা। কিন্তু আশা ছাড়ছে না নাপোলি। দিন কয়েক আগে এএস রোমাকে ২-১ গোলে হারিয়ে এই ম্যাচের প্রস্তুতি সেরেছে তারা। এরপর গোলরক্ষক পেপে রেইনার আশাবাদ, ‘রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়ানোর বিশ্বাস আমাদের রাখতে হবে। কারণ ওদের আমরা ২-০ গোলে হারাতে পারি। ’ প্রতিপক্ষকে ফেভারিটের মুকুট পরিয়ে দিচ্ছেন অনায়াসে। তার পরও বার্নাব্যুতে ৩-১ গোলের হারে ওই অ্যাওয়ে গোলকে গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে দেখছেন রেইনা, ‘প্রতিপক্ষের মাঠে গিয়ে গোল করা খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমরা তা করেছি। এই খেলায় আমাদের হারানোর কিছু নেই। রিয়াল মাদ্রিদ আগেও ফেভারিট ছিল, এখনো তাই। তবে সান পাওলোতে উন্মাদনায় ভরা অভ্যর্থনার আশা ওরা করতে পারে। ’

আর স্টেডিয়ামের ভেতরের অবস্থা তো বলাই বাহুল্য। এবারও সান পাওলোর দর্শকরা নিশ্চিতভাবে প্রতি মুহূর্তে জানান দেবেন নিজেদের। তবে নাপোলি সমর্থকদের ‘ঠাণ্ডা’ করে দেওয়ার অস্ত্র তো রয়েছেই রিয়াল কোচ জিদানের কাছে। রেইনা যে ২-০ ব্যবধানে অ্যাওয়ে গোলে ভর করে কোয়ার্টারে যাওয়ার আশা করছেন, তা কতটা সম্ভব? ৯০ মিনিটের ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদ গোল দেয় না—এটি যে এখন প্রায় বিস্মৃতির ছবি! প্রায় বছরখানেক এবং ৪৬ ম্যাচ আগে ঘটেছিল অমনটা। আর সান পাওলোকে রিয়ালের এক গোল দেওয়া মানেই খেলা অতিরিক্ত সময়ে টেনে নিতেও নাপোলিকে দিতে হবে তিন গোল।

রিয়াল মাদ্রিদের সুবিধার দিক রয়েছে আরো। সর্বশেষ লিগ ম্যাচে এইবারের বিপক্ষে কোচ জিদান খেলিয়েছেন প্রায় দ্বিতীয় সারির একাদশ। ইনজুরির কারণে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো ছিলেন না, বহিষ্কারাদেশের জন্য গ্যারেথ বেল ও আলভারো মোরাতা। মার্সেলো, টোনি ক্রোস, দানি কারভাহালরা ছিলেন বিশ্রামে। লাস পালমাসের বিপক্ষে ঠিক আগের ম্যাচেই যেমন বিশ্রামে ছিলেন করিম বেনজিমা, কাসেমিরো, লুকা মডরিচ, পেপেরা। আজ ঝরঝরে এক একাদশই তাই বেছে নিতে পারবেন জিদান। নাপোলির কোচের যে সুবিধা নেই। দিনকয়েক আগে রোমার বিপক্ষে মহারণে নামাতে হয়েছে পুরো শক্তির দল, তাতে শক্তিক্ষয়ও হয়েছে নিশ্চিতভাবে।

এই ‘বিশ্রাম’ নিয়ে এখন মহাগণ্ডগোল আর্সেনালে। লিভারপুলের বিপক্ষে সর্বশেষ ম্যাচের প্রথম একাদশে আলেক্সিস সানচেসকে রাখেননি তিনি। কোচের সঙ্গে ঝামেলার কারণেই নাকি অমন ব্যবস্থা—এই গুঞ্জন চাউর দশদিকে। আগামী মৌসুমে এই চিলিয়ান নাকি দলও ছেড়ে দেবেন। তবে তা নিয়ে পরেও ভাবতে পারবেন আর্সেন ওয়েঙ্গার। আপাতত তাঁর সামনে আরো অনেক বড় চ্যালেঞ্জ। বায়ার্ন মিউনিখ।

প্রথম লেগে খুব খারাপ করছিল না আর্সেনাল। সমানে সমান লড়ে প্রথমার্ধ শেষ করে ১-১ সমতায়। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে কার্লো আনচেলত্তির দল উড়িয়ে দেয় ‘গানার’দের। জেতে ৫-১ গোলে। গতবার গ্রুপ পর্বে আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় ঠিক একই ব্যবধানে আর্সেনালকে হারায় বায়ার্ন। এমিরেটসে অবশ্য ২-০ ব্যবধানে জেতে আর্সেনাল। আজকের ম্যাচের আবহে সেটিও যা একটু অনুপ্রেরণা দিচ্ছে ইংল্যান্ডের দলটিকে। এএফপি






সঙ্গতিপূর্ণ সংবাদ

  • বার্সার সামনে জুভেন্টাস, বায়ার্নকে পেল রিয়াল
  • আইসিসি’র চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরে গেলেন মনোহর
  • ফিজিকে উড়িয়ে বাংলাদেশের জয়
  • লায়ন তাণ্ডবে ১৮৯ রানেই গুটিয়ে গেল ভারত
  • বন্ধ হয়ে যেতে পারে আইপিএল!
  • কলারোয়ায় স্বাধীনতা দিবস টি-২০ ক্রিকেট লীগে পূর্ব অঞ্চলের জয়
  • কলারোয়ায় ৩য় স্বাধীনতা দিবসের ক্রিকেট লীগ উদ্বোধন