আগামী বছর থেকে ৬ষ্ঠ শ্রেণির টিউশন ফি দেবে সরকার

সাতক্ষীরা নিউজ ডেস্ক :: আগামী ২০২০ শিক্ষাবর্ষ থেকে ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি দেবে সরকার। এসইডিপি প্রকল্পের সমন্বিত উপবৃত্তি কর্মসূচি শীর্ষক স্কিমের আওতায় শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি দেয়া হবে। আর একই স্কিমের আওতায় ২০২০ শিক্ষাবর্ষ থেকে পর্যায়ক্রমে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের টিউশন ফিয়ের সুবিধা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ সূত্র দৈনিক শিক্ষাডটকমকে এ তথ্য

নিশ্চিত করেছেন।মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, এসইডিপি প্রকল্পের সমন্বিত উপবৃত্তি কর্মসূচি শীর্ষক স্কিমের আওতায় ২০২০ শিক্ষাবর্ষ থেকে পর্যায়ক্রমে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের শতভাগ টিউশন সুবিধা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আর ২০২০ শিক্ষাবর্ষ থেকে ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি প্রদানের বিষয়টি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কাজ শুরু হয়েছে।

সূত্র আরও জানায়, ২০২০ শিক্ষাবর্ষ থেকে ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি প্রদানের বিষয়টি বাস্তবায়নে আগামী মঙ্গলবার (২৪ সেপ্টেম্বর) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে এক সভার আয়োজন করা হয়েছে। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. সোহরাব হোসাইন এতে সভাপতিত্ব করবেন। মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এদিন বিকেল তিনটায় এ সভা শুরু হবে। সভায় এসইডিপি প্রকল্পের অংশীজনদের সাথে এ বিষয়টি আলোচনা করা হবে। সভায় অর্থ বিভাগের সচিব, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ ও কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের কর্মকর্তারা, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের মহাপরিচালক, ঢাকা বোর্ডের চেয়ারম্যান, মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান, রাজধানীর বেশ কয়েকটি স্কুল কলেজের প্রধানসহ এসইডিপি প্রকল্পের অংশীজনরা উপস্থিত থাকবেন।

এর আগে গত ২৩ মে আন্তর্জাতিক মার্তৃভাষা ইনস্টিটিউটে অনুষ্ঠিত এসইডিপি প্রকল্পের এক কর্মশালায় শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানান, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারে মানসম্মত শিক্ষার বিষয়টি ছিল। মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করতে এই প্রকল্পের মাধ্যমে ৬ষ্ঠ থেকে ১২শ শ্রেণির সব শিক্ষার্থীর টিউশন ফি দেয়া হবে। এছাড়াও পাবলিক পরীক্ষার ফি প্রদান, বই কেনা, উপবৃত্তি ও টিউশন ফি এবং স্টকহোল্ডারদের প্রশিক্ষণ ও ওরিয়েন্টশন প্রদান করা হবে।

প্রসঙ্গত, মাধ্যমিক শিক্ষার জন্য এযাবৎকালের মধ্যে সবচেয়ে বড় পাঁচ বছর মেয়াদী (২০১৭-১৮ থেকে ২০২১-২২) ‘মাধ্যমিক শিক্ষা উন্নয়ন প্রকল্প’ এসইডিপি এর মোট ব্যয় ধরা হয়েছে এক লাখ ৩৯ হাজার কোটি টাকা। জানা গেছে, প্রাথমিকভাবে এর ৯৫ ভাগ অর্থ দেবে সরকার। আর মাত্র ৫ শতাংশ আসবে বিশ্বব্যাংক, এডিবি, ইউনিসেফ ও ইউনেস্কোসহ মোট ছয়টি সংস্থার কাছ থেকে।






সংযুক্তিমূলক সংবাদ ..

  • রাশিয়ায় পারমাণবিক গবেষণার সুযোগ পেয়েছিলেন আবরার
  • বুয়েটে দলীয় ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ ঘোষণা
  • সেই তানিয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার মেধা তালিকায়
  • স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ’ এর দ্বিতীয় অধ্যায় এখন পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে
  • তালার শিক্ষক জি,এম আসাদুজ্জামান সেরা কন্টেন্ট নির্মাতা
  • শিক্ষার হাল ও উত্তরণ
  • ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন নারী মাদকাসক্তি চিকিৎসা ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে পারিবারিক সভা
  • Leave a Reply