ব্যবসায়ীদের ওপর সুনামগঞ্জে পুলিশের এসআই’র লাঠিচার্জ ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ: নারী ও শিশু সহ আহত অর্ধশতাধিক

pic-tahirpur-police-stastion
Share Button


সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি ::
দু’ ব্যবসায়ীর ব্যাক্তিগত বিরোধে এক ব্যবসায়ীর পক্ষে অতি উৎসাহি মনোভাব দেখাতে গিয়ে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর থানা সদরে এক বিতর্কিত এসআইর নেতৃত্বে বুধবার দুপুরে সাধারন ব্যবসায়ীদের ওপর বেধরক লাঠিচার্জ করা হয়েছে।

ব্যবসায়ীরা বাঁধা দিতে এলে ওই এসআইর নেতৃত্বে সাধারন ব্যবসায়ীদের ওপর পুলিশ কমপক্ষে ২০ রাউন্ড টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে রণক্ষেত্র তৈরী করে। পুলিশের রাবার বুলেটে এক নারী ও অপর এক শিশু সহ কমপক্ষ্যে অর্ধ শতাধিক লোকজন আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত তিন জনকে তাৎক্ষণিক ভাবে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ও অপর নারী ও শিশুকে তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, তাহিরপুর উপজেলা সদরে রতনশ্রী গ্রামের এনামুল হক ও ভাটি তাহিরপুর গ্রামের ছুরত আলমের মধ্যে লেনদেন সংক্রান্ত বিষয়ে উভয় পক্ষের লোকজন সদর বাজারে মঙ্গলবার ও বুধবার একে অপরের লোকজনকে দু’দফা মারপিট করে।

এদিকে এ মারপিটের ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার বেলা ১২ টার দিকে তাহিরপুর থানার বিতর্কিত এসআই রফিকুল ইসলাম সাথে অপর তিন কনষ্টেবলকে নিয়ে সাধারন ব্যবসায়ীদের ওপর বেধরক ভাবে লাঠিচার্জ করতে থাকে। এক পর্যায়ে প্রত্যক্ষদর্শী ও অন্যান্য ব্যবসায়ীরা বাঁধা দিতে এলে থানা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ সদস্য নিয়ে এসে আবারো রফিকের নেতৃত্বে নিরীহ ব্যবসাীয়দের ওপর লাঠিচার্জ এবং রাবার বুলেট ছুড়া হয়। এতে এক পথচারী নারী , অপর এক শিশু সহ কমপক্ষেশ্য অর্ধ শতাধিক লোকজন আহত হয়েছেন।

আহতদের মধ্যে মুজিবনুর, আবদুল আউয়াল, ওয়াহাদনুরকে তাৎক্ষণিক ভাবে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। অপরদিকে আহত ৬ বছরের শিশু ফারহাদ ও অপর এক নারীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়াও পুলিশের লাঠিচার্জ পথচারী ও প্রত্যক্ষদর্শীদের মধ্যে সাজুল লালন , সাজন, বাবুল , আতিক , অনিক , শ্যামল জুয়েল মিয়া, মহসিন মিয়া, অদুদ সহ আরো অনেকেই আহত হয়ে প্রাথমিক ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ধীমান চন্দ্র চন্দ জানান, ব্যবসায়ীদে দ্বন্ধের ঘটনায় অতি উৎসাহী হয়ে থানার এসআই রফিকুল ইসলাম নিজের দাপট দেখাতে গিয়ে অন্যায় ভাবে এক ব্যবসায়ীর পক্ষ নিয়ে সাধারন ব্যবসায়ী ও পথচারীদের ওপর প্রথমে লঠিচার্জ এবং পরবর্তীতে রাবার বুলেট নিক্ষেপের ঘটনা ঘটিয়ে আইনশুংখলার চরম অবনতি ঘটায়।

পুলিশের লাঠিচার্জে আহত অব: সেনা সদস্য মহসিন মিয়া জানান, সিলেট থেকে বাড়ি ফেরার পথে জুয়েল নামের এক পথচারীকে রফিক এসসাই অহেতুক মারপিট করে এমনকি গ্রামের ভেতর ডুকে এক নারীকে লাঞ্চিত ও মারধর করেছে।






সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • শার্শায় আয়নাল চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে উদ্দেশ্য মূলক বক্তব্য’র প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন
  • বালু খেকোদের অস্ত্রের আঘাতে আহত ২, গোলাপগঞ্জে উত্তেজনা
  • নকলা-নালিতাবাড়ি যৌথ ফুটবল টূর্ণামেন্ট অনুষ্ঠিত
  • পার্বতীপুরে কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত
  • মান্দায় স্কুল ছাত্রীর সাবেক স্বামী ও বন্ধুর অসামাজিক কাজে বাঁধা দেয়ায় ৩জনকে পিটিয়ে জখম ভিন্নখাতে প্রবাহিতের অপচেষ্ঠা
  • মান্দায় বাসের ধাক্কায় বিভাগীয় কমিশনারসহ ২জন আহত
  • মুক্তিযোদ্ধা অনিল বর্মণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সমাহিত
  • নকলায় বাল্যবিবাহ ও মাদক বিরোধী শপথ ও সচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত