তিন বাংলাদেশি কন্যার ফের ব্রিটিশ জয়

rupa_rusnara_tulip

সাতক্ষীরা নিউজ ডেস্ক :: যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্ট নির্বাচনে স্পষ্ট ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টি। সর্বশেষ প্রাপ্ত ফলাফলে ৬৫০ আসনের মধ্যে দলটি পেয়েছে ২৯৭ আসন। বিরোধী লেবার পার্টি পেয়েছে ২৫২ আসন। আর এই লেবার পার্টি থেকে মনোনয়ন পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত তিন নারী।

তারা হলেন, বঙ্গবন্ধুর নাতনি টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক (শেখ রেহনোর মেয়ে), ড. রূপা হক ও রুশনারা আলী। এদের মধ্যে রুশনারা আলী টানা তৃতীয় মেয়াদে আর টিউলিপ ও রূপা হক টানা দ্বিতীয়বার বিজয়ী হলেন।

এই তিন কন্যার বিজয়ে তাদের অভিনন্দন জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

রুশনারা আলী

সিলেটের মেয়ে রুশনারা টানা তৃতীয়বার যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্ট নির্বাচনে বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন। লেবার পার্টির এই প্রার্থী দেশটির বেথনালগ্রিন অ্যান্ড বো আসনে ৩৫ হাজার ৩৯৩ ভোটের ব্যবধানে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির প্রার্থীকে পরাজিত করেছেন।

রুশনারা আলী পেয়েছেন ৪২ হাজার ৯৬৯ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ পার্টির আইনজীবী চার্লে ক্রিরিসো পেয়েছেন মাত্র ৭ হাজার ৫৭৬ ভোট।

সিলেটের মেয়ে রুশনারা ২০১০ সালে প্রথম কোনো বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত হিসেবে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন। ২০১৫ সালেও তিনি এই আসনে বিজয়ী হন।

টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক

যুক্তরাজ্যের নির্বাচনে বঙ্গবন্ধুর নাতনি টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক ফের নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি হ্যাম্পস্টেড অ্যান্ড কিলবার্ন আসনে ১৫ হাজার ৫৬০ ভোটে বিজয়ী হয়েছেন।

লেবার পার্টির প্রার্থী হিসেবে টিউলিপ পেয়েছেন ৩৪ হাজার ৪৬৪ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ পার্টির ক্লেয়ার-লুইসি লেল্যান্ড পেয়েছেন ১৮ হাজার ৯০৪ ভোট।

এর আগে ২০১৫ সালের মে মাসে টিউলিপ সিদ্দিক লেবার পার্টির মনোনয়ন পেয়ে ১ হাজার ১৩৮ ভোটের ব্যবধানে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির প্রার্থীকে পরাজিত করেন বিজয়ী হয়েছিলেন।

শেখ রেহেনার মেয়ে টিউলিপ সিদ্দিক ইংল্যান্ডে লন্ডনের মিচ্যাম এলাকায় ১৯৮২ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ২০১৩ সালে সেন্ট জন পার্সিকে বিয়ে করেন।

কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রিধারী পার্সি ব্রিটিশ সিভিল সার্ভিসের অভিজ্ঞতাসম্পন্ন কোম্পানি পরিচালক এবং কৌশলগত পরামর্শক।

ড. রূপা হক

পাবনার মেয়ে ড. রূপা হক লন্ডনের ইলিং সেন্ট্রাল অ্যান্ড অ্যাকন থেকে পুর্ননির্বাচিত হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ৩৩ হাজার ৩৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ পার্টির জয় মরেসী পেয়েছেন ১৯ হাজার ২৩০ ভোট।

২০১৫ সালেও রূপা হক এই আসনে বিজয়ী হয়েছিলেন। কিংসটন ইউনিভার্সিটির সমাজবিজ্ঞানের জ্যেষ্ঠ শিক্ষক রূপা লন্ডনে জন্মগ্রহণ করেন।






সঙ্গতিপূর্ণ আরো খবর

  • শক্তিশালী দল নিয়েই বাংলাদেশে আসছে অস্ট্রেলিয়া
  • টানা তিন দিন বৃষ্টির সম্ভাবনা
  • পাতানো ম্যাচ খেলে ফাইনালে পাকিস্তান?
  • অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়েছে চালের দাম
  • রাজনের পরিবারের পাশে জি.এম সৈকত
  • পাহাড় ধস: ৫০ ফুট গভীর খাদে মিলল আরেক সেনা সদস্যের লাশ
  • যে ৫টি কারণে ভারতকে হারাতে পারে বাংলাদেশ
  • দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করবেন না, প্রবাসীদের প্রধানমন্ত্রী